সেরেনার শীর্ষস্থান হারানোর আশঙ্কা

সেরেনার শীর্ষস্থান হারানোর আশঙ্কা August 17, 2016 0 comments

রঙিন ডেস্ক : রিও অলিম্পিকের হারার হতাশাই পুড়ছেন বিশ্বের এক নম্বর টেনিস তারকা সেরেনা উইলিয়ামস। কাঁধের ইনজুরিও ভোগাচ্ছে। এবার মরার ওপর খাড়ার ঘাঁ হতে যাচ্ছে। আশঙ্কা রয়েছে টেনিসের শীর্ষস্থান হারানোরও। ইনজুরির কারণে যুক্তরাষ্ট্রে চলমান সিনসিনাটি মাস্টার্স (ওয়েস্টার্ন এন্ড সাউদার্ন ওপেন) থেকে নাম প্রত্যাহার করে নিয়েছেন মার্কিন টেনিস আইকন।

এই ইভেন্টে সেরেনার সামনে ছিল হ্যাটট্রিক শিরোপা জেতার হাতছানি। তার অনুপস্থিতিতে চ্যাম্পিয়ন হলেই বিশ্বসেরার আসনে বসবেন র‌্যাংকিংয়ের দুই নম্বর তারকা জার্মানির অ্যাঞ্জেলিক কারবার; যিনি চলতি বছরের অস্ট্রেলিয়ান ওপেন জয়ী ও উইম্বলডনের রানারআপ। দুটি গ্রান্ড স্লাম টুর্নামেন্টেই তার প্রতিপক্ষ ছিলেন সেরেনা।

রিও অলিম্পিক থেকে এবার খালি হাতেই ফেরেন ২০১২ লন্ডন অলিম্পিক স্বর্ণজয়ী সেরেনা। তৃতীয় রাউন্ডেই ইউক্রেন তরুণী ইলিনা ভিতোলিনার কাছে অঘটনের শিকার হন। ডাবলস ইভেন্টে বড় বোন ভেনাস উইলিয়ামসের সঙ্গে তো প্রথম রাউন্ডেই বাদ পড়ার লজ্জায় ডোবেন। অথচ, নারী দ্বৈতে তারা তিনবার (২০০০, ২০০৮, ২০১২) স্বর্ণ পদক জিতেছিলেন।

অলিম্পিক হতাশা কাটতে না কাটতেই ঘরের মাটিতে সিনসিনাটি মাস্টার্স থেকেই ছিটকে গেলেন সেরেনা। টুর্নামেন্টের ওয়েবসাইটে দেয়া বিবৃতিতে তিনি উল্লেখ করেন, ‘সিনসিনাটিতে ওয়েস্টার্ন এন্ড সাউদার্ন ওপেনে খেলতে না পারায় আমি খুবই হতাশ। শিরোপা ধরে রাখাই আমার লক্ষ্য ছিল। কাঁধের ব্যথা একটি চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে। যত দ্রুত সম্ভব কোর্টে ফেরার ব্যাপারে আমি উদ্বিগ্ন।’

আরপি/ এএইচ

No Comments so far

Jump into a conversation

No Comments Yet!

You can be the one to start a conversation.

Your data will be safe!Your e-mail address will not be published. Also other data will not be shared with third person.