সারা বছর ধরে রাখুন এই অভ্যাসগুলো

সারা বছর ধরে রাখুন এই অভ্যাসগুলো August 18, 2016 0 comments

রঙিন ডেস্ক : প্রতি মৌসুমে একটু একটু করে বদলায় আমাদের জীবন চর্চা। বর্ষা এলে ব্যাগে থাকে একটা ছোট্ট ছাতা, গ্রীষ্মে এক জোড়া সানগ্লাস আর শীতে লিপ বাম। কাউকে বলে দিতে হয় না, প্রয়োজনের বশেই তৈরি হয়ে যায় ছোট্ট ছোট্ট অভ্যাসগুলো। কিছু কিছু অভ্যাস আছে যা কেবল নির্দিষ্ট মৌসুমে নয়, সারা বছরই কাজে লাগতে পারে। এই গরমকালে রপ্ত করা অভ্যাসগুলো তাই আপনিও বজায় রাখুন সারা বছর জুড়েই। চলুন দেখে নিই এমন অভ্যাসগুলোকে-

১) মৌসুমি ফল ও সবজি খাওয়া
গ্রীষ্মকালের মৌসুমি ফল অনেক মজাদার হয়। সারাবছর ফল না খেলেও এই সময়ে আম-কাঁঠাল সবার বাসাতেই থাকে। এই অভ্যাস সারা বছরই বজায় রাখুন। মৌসুমের ফল টাটকা থাকতে থাকতে খাওয়ার অভ্যাস গড়ে তুলুন পরিবারের সবার মাঝে।

২) রোদে সময় কাটানো
গ্রীষ্মের সময়টায় ইচ্ছে না করলেও অনেকটা রোদ পড়ে আমাদের ত্বকে। সারা বছরই শরীরে রোদ লাগানোর চেষ্টা করুন। এটা ঘুমের সমস্যা দূর করা থেকে শুরু করে ভিটামিন ডি এর অভাব পূরণের মতো উপকারগুলো করে।

৩) সানস্ক্রিন ব্যবহার
হ্যাঁ, সারা বছর রোদের আঁচ গ্রীষ্মের মতো অত বেশি থাকে না বটে, কিন্তু তারপরেও নিয়মিত সানস্ক্রিন ব্যবহার করুন। অন্য সময়ে হয়তো ঘাম কম হবে ফলে একাধিক বার সানস্ক্রিন মাখতে হবে না। কিন্তু বাসা থেকে বের হবার সময়ে সানস্ক্রিন দিয়ে বের হওয়াটাই ভালো। এ ছাড়াও ছাতা বা টুপি সাথে রাখতে পারেন সবসময়।

৪) সাথে রাখুন সানগ্লাস
হ্যাঁ, ত্বক নিরাপদ রাখার পাশাপাশি চোখকেও রাখুন সুস্থ। সারা বছরই ব্যবহার করুন সানগ্লাস। এতে ছানি, ম্যাকুলার ডিজেনারেশন এবং চোখের ক্যান্সারের ঝুঁকি কমানো সম্ভব হয়।

৫) যথেষ্ট পরিমাণে পানি পান করুন
গরমে ঘেমে যাবার ফলে তৃষ্ণা বেশি লাগে, ফলে অনেকেই বেশ করে পানি পান করেন গ্রীষ্মে। কিন্তু অন্যান্য মৌসুমে তাদের পানি পানের প্রতি মনোযোগ কমই থাকে। সারা বছর নিয়ম করে প্রয়োজনীয় পরিমাণে পানি পান করুন, তেমন একটা তৃষ্ণা না লাগলেও। এতে হিটস্ট্রোক এবং অন্যান্য শারীরিক সমস্যা এড়ানো সম্ভব হয়।

৬) পোকামাকড় থেকে দূরে থাকুন
গরম ও বৃষ্টির দিনে মশার উপদ্রবটা বেশিই হয়। তাই বলে বছরের বাকি দিনগুলো অসতর্ক থাকলে হবে না। মশারি ব্যবহার করুন সারা বছর। পাশাপাশি বাণিজ্যিক বা ঘরোয়া কীটনাশক ব্যবহার করতে পারেন। বাড়ি ও এর আশেপাশের জায়গা পরিষ্কার রাখুন যাতে পোকামাকড় বাসা বাঁধতে না পারে।

টিএইচ/এএইচ

No Comments so far

Jump into a conversation

No Comments Yet!

You can be the one to start a conversation.

Your data will be safe!Your e-mail address will not be published. Also other data will not be shared with third person.