সম্পর্কের পাঁচটি সিঁড়ি

সম্পর্কের পাঁচটি সিঁড়ি December 18, 2016 0 comments

রঙিন ডেস্ক : আপনার জুটিকে হয়ত অনেকেই পারফেক্ট জুটি বলে ঈর্ষা করেন। আপনিও হয়ত সেটাই বিশ্বাস করেন। কিন্তু মনে বিশ্বাস থাকলেও অনেক সময় আমরা বিভ্রান্ত বোধ করি। ভাবি, একসাথে কাটাতে পারব তো আজীবন? তারপর কখন যেন একসময় আর থাকা হয় না একসাথে। কেন এমন ঘটে? প্রত্যেকটা মানুষই তাদের জীবনে সত্যিকারের ভালবাসা খুঁজে পায়। কিন্তু সমস্যা হল সে ভালবাসার ৫টি স্টেজ পূরণ করতে পারে না। বেশীরভাগ সময়ই তারা ৩য় স্টেজ পর্যন্ত যেতে পারে।

প্রেমে পড়া

প্রেমে পড়ার সময় একজন মানুষ হ্যাপিনেস হরমোনের মাঝে জীবনযাপন করতে থাকেন। এই সময় আপনি আপনার সঙ্গীর মাঝে সকল আশা আকাঙ্ক্ষার প্রতিফলন দেখতে পান। আপনার সঙ্গী খুব দ্রুতই আপনার চোখে একজন আদর্শ মানুষ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হন। আপনি তার মাঝে কোন দোষ-ত্রুটি দেখতে পান না। আপনি বিশ্বাস করতে শুরু করেন তিনি সবসময়ই আপনার সকল আকাঙ্ক্ষা এভাবেই পূরণ করে যাবেন।

জুটিতে পরিণত হওয়া

এই স্টেজে ভালবাসা আরও দৃঢ় হয়। সব সময় একসাথে ঘোরাফেরা করতে ভাল লাগে। আপনাদের একে অপরকে জানতে ভাল লাগে এবং আপনি আপনার সঙ্গীর জীবনে একটি বিশেষ জায়গা দখল করে নিতে সক্ষম হন। যুগল এই সময়টা যেন স্বপ্নের মত। অনেকদিন চলতে পারে এরকম আনন্দময় সময়। আপনারা একসাথে অনেক ঘুরে বেড়ালেন, সামাজিকতা বজায় রাখলেন, সন্তান নিলেন। আপনি বিশ্বাস করলেন, এই মানুষটিই সেই ভাগ্য নির্ধারিত একজন যে শুধুই আপনার।

মোহমুক্তি

এটা সেই সময় যখন আপনার স্বপ্নগুলো চূর্ণ হতে থাকে। এই সময় আপনার মনে হতে থাকে আপনি হয়ত আর আগের মত অনুভব করেন না মানুষটিকে। আপনার সঙ্গীকে দিন দিন আপনি আর বুঝতে পারছেন না। তার ব্যবহার মাঝে মাঝে খুবই রাগান্বিত করে আপনাকে। আপনার মনে হতে থাকে এই মানুষটি থেকে কিছুক্ষণের জন্য হলেও যদি আলাদা থাকতে পারতেন! আরও অনেক কিছুই মনে হতে থাকে। যেমন- তিনি আর আগের মত সময় দেন না। হয়ত তিনি কোন সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছেন। নিজেকে আর কষ্টে রাখার কোন মানে নেই ইত্যাদি।

সত্যিকারের প্রেম

৩য় স্টেজটি আপনি যদি ধৈর্য্যের সাথে পার করতে পারেন তাহলে পাবেন আরেক প্রেমের দেখা। যখন স্বপ্ন ভাঙ্গার কষ্ট কিছুটা কমে আসবে আপনি দেখতে পাবেন আপনার সামনের এই মানুষটি হয়ত আপনার স্বপ্নের সেই মানুষ নন, কিন্তু তিনি এমন একজন মানুষ যিনি আপনাকে ভালবেসেছেন। আপনি তার দোষত্রুটি সহই তাকে গ্রহণ করে নেবেন।

নিজেদের ক্ষমতাকে ব্যবহার করা

এবার আপনি জানেন যে আপনি যে মানুষটিকে ভালবাসেন তিনি আপনাকে কী কী দিতে পারেন আর কী কী পারেন না। আপনি সেই অনুযায়ী জীবন সাজিয়ে নেন। আপনার সঙ্গীর সাথে আপনি গভীর আর অবিচ্ছেদ্য একটি সংযোগ বোধ করেন। কল্পনার জগতের বাইরে পরস্পরকে আপনারা যখন বাস্তব মানুষরূপেই ভালবাসেন তখন আপনাদের ভালবাসা পরিণত হয় শক্তিতে। যে কোন কাজ করতে পারেন আপনারা একসাথে। একসাথে কিছু লেখা, কোন কাজ করা, কিছু সৃষ্টি করা এমন যে কোন কিছু হতে পারে। কিন্তু সেটা যাই হোক না কেন তা হবে অন্য যে কোন কাজের চেয়ে অনেকগুণ ভাল। আর অবশেষে আপনার মন আবার বলবে, ‘হ্যা, এই মানুষটিই আমার জন্য। একেই আমি ভালবাসি!’

টিএইচ/এএইচ

No Comments so far

Jump into a conversation

No Comments Yet!

You can be the one to start a conversation.

Your data will be safe!Your e-mail address will not be published. Also other data will not be shared with third person.