বইমেলায় রুবাইদা গুলশানের ‘অন্তরালের বর্ণফুল’

বইমেলায় রুবাইদা গুলশানের ‘অন্তরালের বর্ণফুল’ February 19, 2016 0 comments

রঙিন ডেস্ক: রুবাইদা গুলশান। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের লোক প্রশাসন বিভাগ থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করে এই লেখিকা। অমর একুশে বইমেলায় এসেছে রুবাইদা গুলশানের উপন্যাস ‘অন্তরালের বর্ণফুল’। ছোটবেলা থেকেই লেখালেখির অভ্যাস থাকলেও সাহিত্যের বড় পরিসরে রুবাইদার বিচরণ শুরু ‘অন্তরালের বর্ণফুল’ দিয়েই।

বাংলাদেশের বেশ কয়েকটি অনলাইন সংবাদমাধ্যমে তার কয়েকটি কবিতাও প্রকাশিত হয়েছে। এছাড়া চলতি বছর সৃষ্টি প্রকাশনীর ‘পরম্পরা’ নামক কবিতা সংকলনে প্রকাশিত হয়েছে তার ‘আমিও ফিরবো’ শিরোনামের কবিতা। ‘গুলশানে রোজ’ ছদ্মনামেও লিখেন তিনি।

‘অন্তরালের বর্ণফুল’ সম্পর্কে লেখিকা  রঙিন ডটকমকে বলেন, ‘উপন্যাসের গল্প ভাষা শহীদ শফিউর রহমানকে ঘিরে। সময়ের হাত ধরে ফিরে চলুন ফেলা আসা সময়ে, কেমন করে  অন্তরাত্মায় বিপ্লবের জাগরণে জীবন এগিয়ে চলে। একুশে বইমেলায় অন্তরালের বর্ণফুল দেখা মিলবে মূধর্ন্য প্রকাশনীর ৩৪৯-৩৫০ নম্বর  স্টলে। দাম ১৫০ লেখা আছে।’

এছাড়াও কিছুক্ষণ আগে তার প্রকাশিত বই নিয়ে ফেসবুকে আত্মপ্রকাশ করেছেন তিনি। সবচেয়ে যে মানুষটার ভালোবাসা দরকার ছিলো তা বোধহয় তিনি পেয়েছেন। তার  স্টাটাসটিতে সেটি খুব স্পষ্টভাবেই বোছা যাচ্ছে।

Rubayda gulshanরুবাইদা গুলশানের ফেসবুক স্টাটাসটি তুলে ধরা হলো- ‘কয়েকদিন হয়ে গেল বই বের হয়েছে, আমি জানি আমার লেখার ভাষা একটু কঠিন হয়ে যায়, আসলে ইচ্ছে করে যে এমনটি করি তা নই, আমি বরাবর আমার স্বকীয়তা বজায় রাখতে চেয়েছি, আমি চেয়েছি আমার মত করে লিখতে। অনেকের হাতে বইটি চলে গেছে কিন্তু কেউ কিছু বলছে না, কেমন হল, হয়ত অনেকে পড়ার সুযোগ করতে পারে নি।একটু আগে আব্বু ফোন দিলেন তিনি শুধু আমার লেখার প্রশংসা করলেন, এমন ভাবে করলেন তা বর্ণনা করার মত শব্দ আমার কাছে নেই।তবে আমি শুধু এটুকু বুঝলাম তাঁর গলা ধরে এসেছে, আর চোখে জল টলমল করছে।আমাকে বললেন যে যাই বলুক মা লেখালেখি ছেড়ে দিও না, এটাকে ধরে রেখ।

আসলে আমার তো আর দুঃখ করার মত কিছু নেই।বাবার কাছ থেকে ভালোলাগার অনুভূতি পেয়েছি, আমার আর কি চাই!!!!

চাই, আমার এখনো একটা চাওয়া বাকি যে চাওয়ার সাথে ছোট ছোট স্বপ্ন বুনে রেখেছি।

ইনশাআল্লাহ্‌ আল্লাহ্‌ কাউকে নিরাশ করেন না তাঁর রহমত হতে।তাঁর রহমতের অফুরন্ত ভান্ডার থেকে আমাকে কিছু দিলে কমে যাবে না।দোয়া করবেন। আমীন।’

এমএস/এএইচ

No Comments so far

Jump into a conversation

No Comments Yet!

You can be the one to start a conversation.

Your data will be safe!Your e-mail address will not be published. Also other data will not be shared with third person.