প্রথম সেশনে ভালো করাই বাংলাদেশের লক্ষ্য

প্রথম সেশনে ভালো করাই বাংলাদেশের লক্ষ্য 0 comments

রঙিন ডেস্ক : নিউজিল্যান্ডের ওয়েলিংটনে আগামী ১২ জানুয়ারি মাঠে গড়াবে প্রথম টেস্ট ম্যাচ। এ ম্যাচে প্রথমে বল বা ব্যাট যাই পাওয়া যাক না কেনও বাংলাদেশের লক্ষ্যটা হবে শুরুতে প্রথম সেশনটা ভালো করা এবং ক্রিজে লম্বা সময় টিকে থাকা। এ কথাগুলো বাংলাদেশের টেস্ট ক্যাপ্টেন মুশফিকুর রহিমের।

২০০১ সালে নিউজিল্যান্ড এই মাঠে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ইনিংস এবং ৭৪ রানে জয়ী হয়। আর ২০০৮ সালের ফলাফল ছিল ইনিংস এবং ১৩৭ রানের বিশাল ব্যবধানে হার। ২০০১ সালে নবীন টেস্ট খেলুড়ে দল বাংলাদেশের খেলাটা চতুর্থ দিন পর্যন্ত গড়ালেও ২০০৮ সালের খেলা শেষ হয়ে যায় তৃতীয় দিনেই। এখন অবশ্য বাংলাদেশ বদলে যাওয়া একটি দল। সে কারণে বাংলাদেশের কাছে দেশবাসীর আশা-প্রত্যাশাও বেশি।

বৃহস্পতিবারের ম্যাচ পূর্ববর্তী সংবাদ সম্মেলনে ঘুরে ফিরে প্রশ্ন আকারে আসে ইংল্যান্ড দলের বিপক্ষে বাংলাদেশ দলের সর্বশেষ টেস্ট জয় প্রসঙ্গ। মুশফিক বলেন, ‘আমি একটা বিষয় পরিষ্কার করতে চাই, তাহলো ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে একটি জয় মানে এমন না যে বাংলাদেশ অনেক বড় একটা টিম। আমরা সেই খেলাটা আমাদের কন্ডিশনে খেলেছি। বিদেশের কন্ডিশন ভিন্ন। এই ভিন্ন কন্ডিশনে আমরা ভালো খেলে সেই ধারাবাহিকতাটা দেখাতে চাই। আমাদের এখানে চ্যালেঞ্জ থাকবে আমাদের শুরুটা যেন ভালোভাবে করতে পারি।’

তিনি আরও যোগ করেন, ‘আমরা গত দু’বছর দেশেই ভালো ক্রিকেট খেলেছি। এখন বিদেশে ভালো খেলে সে ধারবাহিকতা দেখাতে চাই। এখানে আমাদের প্রধান লক্ষ্য থাকবে যেন শুরুটা ভালো থাকে। আর টেস্টে লম্বা সময় ধরে আমরা যাতে উইকেটে থাকতে পারি।’

নিউজিল্যান্ডে আগের অভিজ্ঞতা নিয়ে মুশফিক বলেন, ‘এখানে আমাদের তামিমের ভালো রান রয়েছে। সাকিব এখানে একশ করেছে-মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ভাই একশ করেছে। এখানে আমাদের অনেক ভালো কিছু ভালো স্মৃতি আছে। এবার আমরা আরও ভালো করতে চাই। দলগতভাবে ভালো করতে চাই।’

টেস্টে নিজেদের প্রত্যাশা নিয়ে মুশফিক বলেন, ‘ওয়ানডে, টি-টোয়েন্টিতে আমাদের সুযোগ থাকা সত্ত্বেও জয় অর্জন করতে পারিনি, টেস্টে তা করতে হবে। আমার দৃঢ় বিশ্বাস আছে সে যোগ্যতা আমাদের আছে। আমাদের চরিত্রগুলো দেখাতে হবে। দীর্ঘ সময় ধরে এখানে উইকেটে টিকে থেকে আমাদের সে কষ্টগুলো করতে হবে। অনেক সময় দেখা যায় আমরা ৫-৬ ওভার ভালো করি বা করতে পারি। কিন্তু এখানে আমাদের কাজগুলো করতে হবে সেশন বাই সেশন। এটা হয়তো অনেক কঠিন হবে। কিন্তু অসম্ভব কখনোই না।’

আরপি/ এএইচ

No Comments so far

Jump into a conversation

No Comments Yet!

You can be the one to start a conversation.

Your data will be safe!Your e-mail address will not be published. Also other data will not be shared with third person.