‘দি গাজি অ্যাটাক’-এ ১৯৭১

‘দি গাজি অ্যাটাক’-এ ১৯৭১ January 12, 2017 0 comments

রঙিন ডেস্ক : বাংলাদেশে মহান একাত্তরের ঘটনার পটকে নিয়ে নির্মিত নতুন ছবি ‘দ্য ঘাজি অ্যাটাক’। ছবিটির মাধ্যমে দেশ মাতৃকা- ভালোবাসা নাকি বাণিজ্যের উপাদান? এমন প্রশ্ন উঠতে পারে বলিউডকে ঘিরে।

মঙ্গলবার ছবিটির ট্রেলার প্রকাশ হয়। যেখানে একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধকে উপস্থাপন করা হয়েছে ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধ হিসেবে।

যা অনেক বিশ্লেষকের মতে, ছবিতে শুধু ‘ভারত’ নামটি জুড়ে দিয়ে ভারতীয় দর্শকদের দেশপ্রেমকে ‘পণ্য’ বানানোর কৌশল মাত্র। আর ‘ঘাজি’ ছবিটি দিয়ে আবারও তার ইঙ্গিত দিলো বলিউড।

বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধকে প্রথম স্বীকৃতি দেয় ভারত। এমন কি স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবেও প্রথম স্বীকৃতিদানকারী দেশ ভারত, সেখানে শুধু তাদের চলচ্চিত্র শিল্পই যেন এ বিষয়টি ‘ভুলে’ যাওয়ার চেষ্টা করছে তাদের সেলুলয়েডের মাধ্যমে। যার অন্যতম প্রমাণ ২০১৪ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘গুন্ডে’ ছবিটি। সেখানে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধকে বিকৃতভাবে তুলে ধরা হয়।

তার সর্বশেষ নজির এসেছে ‘ঘাজি’র ট্রেলারে।

প্রকাশিত ট্রেলারে দেখা যায়, প্রথমেই ভেসে উঠে ‘ইন ১৯৭১’। তারপর মোটা হরফে দেখানো হয় ‘বিফোর ভারত-পাকিস্তান ওয়ার’ লেখাটি!

এরপর পুরো ধারাবিবরণীতে ঘুরেফিরে যুদ্ধটাকে ভারত-পাকিস্তান বোঝানোর চেষ্টা করা হয়েছে ট্রেলারে। অপরদিকে তুলে ধরা হয়েছে ভারতীয় নৌবাহিনী কর্মকর্তাদের দেশের প্রতি ভালোবাসার দিকটি। যারা ১৯৭১ সালে নিজ দেশের ‘যুদ্ধের’ জন্য সব করতে প্রস্তুত!

তবে মঙ্গলবার প্রকাশিত ট্রেলারের আগে পুরো চিত্রটিই ছিল ভিন্ন।
১৮ অক্টোবর ছবিটির প্রথম বড় ধরনের সংবাদ প্রকাশ করে ভারতীয় ইংরেজি দৈনিক হিন্দুস্তান টাইমস। এতে ছবির নায়িকা তাপসী পান্নুর সাক্ষাৎকার ছাপা হয়। সেখানে জানান- তিনি একজন বাংলাদেশির চরিত্রে অভিনয় করছেন এতে।

বলেন, ‘সাবমেরিনভিত্তিক এটি প্রথম ছবি যা ভারতে তৈরি হলো। ছবিতে আমার চরিত্র একজন শরনার্থী বাংলাদেশি মেয়ের। এমন একটি চরিত্র করতে পারাটা আমার জন্য সত্যিই সৌভাগ্যের!’

এতে বিশদভাবে তুলে ধরা হয় বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের যুদ্ধের কথা।

এই সাক্ষাৎকারের পর দেশটির বেশ কয়েকটি প্রভাবশালী গণমাধ্যম ছবিটি নিয়ে খবর প্রকাশ করে। যেখানে তারা প্রত্যেকেই বাংলাদেশ-পাকিস্তানের যুদ্ধের কথা তুলে ধরে।

এমনকি চলতি সপ্তাহে আইএএনএস ও দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসসহ বেশ কয়েকটি পত্রিকা একইভাবে ছবিটির তথ্য উপস্থাপন করে।

বিশেষ করে গত মঙ্গলবার দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস-এ প্রকাশিত এই ছবির খবরেও লেখা ছিল বাংলাদেশ-পকিস্তানের বিষয়টি। অথচ এর পরের দিন বুধবার একই পত্রিকা এটিকে ‘ভারত-পাকিস্তান’ যুদ্ধের গল্প নিয়ে তৈরি বলে সংবাদ ছাপায়। সেই ধারাবাহিকতায় ভারতের প্রায় ২০টি পত্রিকা আজ বুধবার বলছে, ছবিটি ভারত-পাকিস্তানের যুদ্ধ নিয়ে!

হঠাৎ, এই পরিবর্তনের কারণ ছবিটির ট্রেলার। যার অর্থ হচ্ছে পুরো ছবিতে এভাবেই বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধকে এড়িয়ে গিয়ে বিকৃত করা হয়েছে বলে মনে করছেন বাংলাদেশের দর্শক-সমালোচকরা।

তবে কি আরও একটি ছবি বলিউডে মুক্তি পাচ্ছে যেখানে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধকে ছোট এবং ইতিহাস বিকৃত করা হচ্ছে?

তবে বাংলাদেশিদের জন্য হয়তো একমাত্র সান্ত্বনা হয়ে থাকবে ছবিতে অভিনয় করা পান্নুর কণ্ঠে বাংলা সংলাপটি- আমার সোনার বাংলা, আমি তোমায় ভালোবাসি। এটুকুই!

আরপি/ এএইচ

No Comments so far

Jump into a conversation

No Comments Yet!

You can be the one to start a conversation.

Your data will be safe!Your e-mail address will not be published. Also other data will not be shared with third person.