ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স’এর কাস্টমার সাকসেস সামিট

ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স’এর কাস্টমার সাকসেস সামিট November 28, 2015 0 comments

রঙিন ডেস্ক : ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স’ এর কাস্টমার সাকসেস সামিট ২০১৫ অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত শুক্রবার পর্যটন নগরী কক্সবাজারের একটি অভিজাত হোটেলে এই সামিট অনুষ্ঠিত হয়।  সারা বাংলাদেশ থেকে প্রায় ৪০০ ট্রাভেল এজেন্ট ও কর্পোরেট অফিসের উর্ধ্বতন প্রতিনিধিদের নিয়ে এই সামিটের আয়োজন করা হয়।

এ ধরনের মিলনমেলা বাংলাদেশের এভিয়েশন ইন্ডাস্ট্রীজের ইতিহাসে এই প্রথম। বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন, এমপি উক্ত কাস্টমার সাকসেস সামিটে প্রধান অতিথি হিসাবে অংশগ্রহণ করেন।

সামিটে উল্লেখযোগ্য অংশের মধ্যে রয়েছে এ্যাওয়ার্ড প্রদান, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, পৃথিবীর দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকতে ফানুস ফেস্টিভালসহ আরো অনেক ইভেন্টের উপস্থিতি ছিল কাস্টমার সাকসেস সামিটে। সারা বাংলাদেশ থেকে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স কর্তৃক তিনটি ট্রাভেল এজেন্সীকে ‘টপ ন্যাশনওয়াইড সেলার অব দ্যা ইয়ার’ নির্বাচিত করা হয়েছে। চ্যাম্পিয়ান অব দ্যা ন্যাশনওয়াইড সেলার হয়েছে চট্টগ্রামের বি ফ্রেশ, ফার্স্ট রানার আপ হয়েছে যশোরের টেকঅফ ট্রাভেলস্ এবং সেকেন্ড রানার আপ হয়েছে ঢাকার ইন্টারন্যাশনাল ট্রাভেল কর্পোরেশন (আইটিসি)।

বর্তমানে ৭৬ আসনবিশিষ্ট তিনটি ড্যাশ ৮-কিউ৪০০ এয়ারক্রাফট রয়েছে, যা দিয়ে রাজধানী ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম, সিলেট, কক্সবাজার, যশোর, সৈয়দপুর, রাজশাহী ও বরিশাল রুটে প্রতিদিন ফ্লাইট পরিচালনা করছে। বাংলাদেশে বিমান পরিবহন যোগাযোগ ব্যবস্থায় ড্যাশ ৮-কিউ ৪০০ এয়ারক্রাফট নিরাপদ, নির্ভরযোগ্য, তাপানুকূল এবং অধিক আরামদায়ক আসন ব্যবস্থা সম্পন্ন এয়ারক্রাফট।

ইউএস বাংলা এয়ার লাইন্স সাকসেস সামিট ২০১৫

ইউএস বাংলা এয়ার লাইন্স সাকসেস সামিট ২০১৫

ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স যাত্রা শুরুর পর থেকে অন-টাইম সার্ভিস, আন্তর্জাতিক মানের ইন-ফ্লাইট সার্ভিস, যা যাত্রী সাধারনের কাছে একটি নির্ভরযোগ্য এয়ারলাইন্স হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে এবং ২০১৫ সালে দেশীয় সকল এয়ারলাইন্সের নানাবিধ দিক বিবেচনায় ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স শ্রেষ্ঠ এয়ারলাইন্স হিসাবে স্বীকৃতি পেয়েছে। সঠিক সময়ে ফ্লাইট পরিচালনার রেকর্ড শতকরা প্রায় ৯৮.৭ ভাগ যা দেশীয় এয়ারলাইন্সগুলির মধ্যে সর্বাধিক এবং স্বল্প যাত্রায় প্রায় শতভাগ যাত্রীদের সন্তুষ্টি লাভ করেছে এয়ারলাইন্সটি। দেশীয় বিমান পরিবহনখাতে ইউএস- বাংলা এয়ারলাইন্স-ই একমাত্র কোম্পানী যা আইএসও ৯০০১:২০০৮ সার্টিফাইড এয়ারলাইন্স। আমেরিকার নিউইয়র্ক সিটির ডিভিশন অব কর্পোরেশন এর একমাত্র তালিকাভূক্ত বাংলাদেশি এয়ারলাইন কোম্পানি। আধুনিক সকল সুযোগ-সুবিধা রয়েছে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সে, যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য ফ্রিকোয়েন্ট ফ্লাইয়ার প্রোগ্রাম ‘স্কাই স্টার’ সহ আরো অনেক সেবাধর্মী ও সময়োপযোগী সার্ভিস। স্কাই স্টার কার্ড ব্যবহারকারীগণ নির্ধারিত ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানে আকর্ষণীয় ডিসকাউন্ট সুবিধা পেয়ে থাকেন।

‘ফ্লাই ফাস্ট-ফ্লাই সেফ’ স্লোগান নিয়ে ২০১৪ সালের ১৭ জুলাই যাত্রা শুরু হওয়া ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স এখন পর্যন্ত ধারাবাহিকভাবে যাত্রীদের আন্তর্জাতিক মানের সেবা দিয়ে যাচ্ছে। এক বছরের মধ্যেই অর্জন করতে পেরেছে নিজস্ব ব্র্যান্ড পরিচিতি। বর্তমানে অভ্যন্তরীণ বিমান পরিবহন সেক্টরে অধিক প্রতিযোগিতার মধ্যেও মার্কেট শেয়ারের অধিকাংশ অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্স। যাত্রা শুরুর পর থেকে এখন পর্যন্ত প্রায় আট হাজার ফ্লাইট পরিচালনা করেছে ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্স, যা অভ্যন্তরীণ রুটে এটি একটি মাইলফলক।

এএইচ

No Comments so far

Jump into a conversation

No Comments Yet!

You can be the one to start a conversation.

Your data will be safe!Your e-mail address will not be published. Also other data will not be shared with third person.