মুক্তির আগেই কোটির ক্লাবে ‘রোবট টু’

নভেম্বর ২৩, ২০১৮ ০ comments

রঙিন ডেস্ক: কেউ সেল ফোন নিয়ে ছবি তুলতে ব্যস্ত, কেউ বা বন্ধু-বান্ধব, আত্মীয়দের সঙ্গে আড্ডা মারতে গিয়েও সেলফোনে চোখ রেখেছেন। হঠাৎই সেই সেল ফোন গুলি হাত থেকে ছিটকে গিয়ে আকাশের দিকে উড়তে উড়তে এক ভয়ঙ্কর চেহারার পাখির রূপ নিল। আর সেই অতি মানবিক ক্ষমতা সম্পন্ন রাক্ষুসে চেহারার পাখির চরিত্রেই দেখা দিলেন অক্ষয়। তার মুখে শোনা গেল বিশেষ একটি ডায়ালগ। “সেলফোন ব্যবহারকারী সমস্ত ব্যক্তিই আদপে খুনি।”

তার কথায়, পৃথিবীকে রিসেট করে মানুষের সেলফোন নিয়ে এই পাগলামো বন্ধ করা ছাড়া বাঁচার আর কোনও উপায় নেই। ড: ভাসিগরন (রজনীকান্ত) যিনি কিনা অক্ষয়ের মত অতি মানবিক ক্ষমতাসম্পন্ন শয়তানের সঙ্গে লড়ার চ্যালেঞ্জ নেন। তৈরি করেন রোবট ‘চিট্টি’-কে। তার শরীরে ২.০ ভার্সন লোড করে দানবীয় চেহারার পাখির সঙ্গে লড়াইয়ের ব্রত নেন। আর এর পরেই গোটা চেন্নাই শহরে ধংসাত্মক ভূমিকা নেন দৈত্যাকৃতি পাখিটি। সেও তার সমস্ত শরীর অতি মানবিক ক্ষমতা ভরে নিয়ে লড়াই শুরু করে।

দক্ষিণ ভারতীয় সিনেমার কিংবদন্তি অভিনেতা রজনীকান্ত ও বলিউডের ‘খিলাড়ি’ খ্যাত অক্ষয় কুমার অভিনীত বহুল প্রতীক্ষিত সিনেমা ‘টু পয়েন্ট জিরো’ বা ‘রোবট টু’র ট্রেলারটি এভাবেই ধরা দিয়েছে। ট্রেলার মুক্তির পর থেকেই এ ছবি নিয়ে মানুষের আগ্রহের শেষ নেই।

আরো পড়ুন: রোদ্দুরের জীবনে ফিরছে মেঘলা!

এদিকে ইতিমধ্যে ভারতের ইতিহাসের সবচেয়ে ব্যয়বহুল ছবির রেকর্ড গড়েছে ‘টু পয়েন্ট জিরো’ ছবিটি। এবার আরেকটি রেকর্ড গড়তে যাচ্ছে ছবিটি। আগামী ২৯ নভেম্বর মুক্তি পাচ্ছে ‘২.০’ ছবিটি। আর মুক্তির আগেই অগ্রিম বুকিং থেকে ছবির আয় হয়ে গেছে ১০০ কোটি রুপি। প্রথম দিন থেকেই ১০ হাজার পর্দায় চলবে শঙ্কর পরিচালিত এ ছবি।

এটি নির্মাণে ব্যয় হয়েছে ৬০০ কোটি রুপি। মুক্তির আগেই ছবিটি থেকে তোলা হয়েছে ১২০ কোটি রুপির বেশি। এর আগে মুক্তির আগেই কোনো তামিল ছবি এত টাকা আয় করেনি। তাই প্রথম তামিল ছবি হিসেবে গর্বের সঙ্গে ১০০ কোটির সীমা পার করে রেকর্ড করল ‘২.০’ ছবিটি। করবে না–ই বা কেন? কারণ এতে অভিনয় করেছেন তামিল ছবির শক্তিশালী অভিনেতা রজনীকান্ত। তার ব্যাপারে আছে নানা মিথ। পৃথিবীর গতি থমকে দিতে পারেন তিনি, গিলে ফেলতে পারেন সূর্যকে। যদিও এর সবই তার ব্যাপারে প্রচলিত কৌতুক।

বিভিন্ন সিনেমা হলে ‘২.০’ ছবিটির অগ্রিম বুকিং চলছে। বিশেষ করে চেন্নাইতে এ ছবি মুক্তির দিনে সব অচল হয়ে যেতে পারে। ঘরদুয়ার বন্ধ করে সবাই চলে যাবে প্রেক্ষাগৃহে। ভারতীয় চলচ্চিত্রের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি টাকা খরচ করে বানানো ছবি বলে কথা। একই সঙ্গে এ ছবি মুক্তি পাবে টুডি ও থ্রিডিতে।

এসএল/এএইচ

No Comments so far

Jump into a conversation

No Comments Yet!

You can be the one to start a conversation.

<