সুস্বাদু ‘ফিশ মাঞ্চুরিয়ান’

সুস্বাদু ‘ফিশ মাঞ্চুরিয়ান’ জুন ১৭, ২০১৭ ০ comments

রঙিন ডেস্ক : মুখরোচক এবং জনপ্রিয় একটি চাইনিজ রেসিপি হলো মাঞ্চুরিয়ান। সাধারণত চিকেন বা বিফ মাঞ্চুরিয়ান খাওয়া হয়। একটু ভিন্ন ধরণের ভেজিটেবল, মাশরুম বা সয়া মাঞ্চুরিয়ানও রান্না করেন অনেকে। যারা মাছ পছন্দ করেন, তারা চেখে দেখতে পারেন ‘ফিশ মাঞ্চুরিয়ান’। এর স্বাদ সাধারণ মাঞ্চুরিয়ানের মতোই দারুণ। বেশ কিছু সস ব্যবহার করার কারণে মাছের আঁশতে গন্ধটাও থাকে না, ফলে খেতে পারেন যে কেউ। চলুন দেখে নিই রেসিপিটি।

উপকরণ

– ৫০০ গ্রাম মাছের ফিলে, কাঁটা ছাড়ানো এবং ছোট ছোট টুকরো করা

ম্যারিনেটের জন্য

– ১ টেবিল চামচ ভিনেগার

– ১ চা চামচ আদা বাটা

– ১ চা চামচ রসুন বাটা

– ১ টেবিল চামচ সয়া সস

ব্যাটারের জন্য

– ৪ টেবিল চামচ কর্ন ফ্লাওয়ার

– আধা কাপ ময়দা

– ডিপ ফ্রাই করার জন্য তেল

সসের জন্য

– ২ টেবিল চামচ তেল

– ১টি পিঁয়াজ বড় বড় টুকরো করে কাটা

– ১টি ছোট সবুজ ক্যাপসিকাম বড় বড় চৌকো করে কাটা

– ১টি লাল ক্যাপসিকাম বড় বড় চৌকো করে কাটা

– কিছু পিঁয়াজকলি কুচি করে কাটা

– ১ টেবিল চামচ আদা-রসুন বাটা

– ১/২ টেবিল চামচ সয়া সস

– ২ টেবিল চামচ টমেটো কেচাপ

– ১ চা চামচ মরিচ গুঁড়ো

– ১ চা চামচ কর্ন ফ্লাওয়ার

– আধা কাপ পানি

– লবণ স্বাদমতো

– আধা চা চামচ চিনি

প্রণালী

১) একটি বড় পাত্রে মাছের টুকরোগুলো নিন। এতে ভিনেগার, আদা-রসুন বাটা এবং সয়াসস দিয়ে ভালো করে মাখিয়ে রাখুন। ম্যারিনেট হতে দিন ১০-১৫ মিনিট।

২) অন্য একটি পাত্রে কর্ন ফ্লাওয়ার এবং ময়দা একসাথে মিশিয়ে নিন। এতে পানি দিয়ে ব্যাটার তৈরি করে নিন। বেশি ঘন হবে না, কিন্তু একেবারে পাতলাও হবে না।

৩) ম্যারিনেট করা মাছগুলো এই ব্যাটারে ডুবিয়ে ভেজে নিন ডুবোতেলে।

৪) অন্য একটি প্যানে দুই টেবিল চামচ তেল দিয়ে গরম করে নিন। এতে পিঁয়াজ দিন। দুই মিনিট নেড়ে নিন। এরপর ক্যাপসিকাম দিয়ে দিন। কয়েকবার নাড়ুন। কিন্তু বেশিক্ষণ রান্না করবে না, এগুলো কচকচে থাকবে। এরপর আদা-রসুন বাটা দিন। এক মিনিট পর মরিচ গুঁড়ো দিন। ভালো করে নেড়ে মিশিয়ে নিন। এরপর ভাজা মাছগুলো দিন। সবশেষে টমেটো কেচাপ এবং সয়াসস দিয়ে নেড়ে নিন।

৫) একটি পাত্রে আধা কাপ পানিতে ১ চা চামচ কর্ন ফ্লাওয়ার গুলে নিন। এই মিশ্রণ প্যানে অল্প অল্প করে দিয়ে সসের সাথে মিশিয়ে নিন। নাড়তে থাকুন যতক্ষণ না মাছের টুকরোগুলো সসে ভালোভাবে মেখে যায়। স্বাদ চেখে দেখুন। দরকার হলে লবণ, চিনি বা সস দিতে পারেন।

গরম গরম পরিবেশন করতে পারেন নুডলস অথবা ফ্রাইড রাইসের সাথে।

টিএইচ/এএইচ

No Comments so far

Jump into a conversation

No Comments Yet!

You can be the one to start a conversation.

<