যুক্তরাষ্ট্রে অনুষ্ঠিত হবে বাংলা উৎসব-২০১৭

যুক্তরাষ্ট্রে অনুষ্ঠিত হবে বাংলা উৎসব-২০১৭

যুক্তরাষ্ট্রে অনুষ্ঠিত হবে বাংলা উৎসব-২০১৭

এপ্রিল ৪, ২০১৭ ০ comments

রঙিন ডেস্ক : আবহমান বাংলার সাংস্কৃতিক এতিহ্যের বর্ণিল সম্ভার নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে অনুষ্ঠিত হবে বাংলা উৎসব-২০১৭ । “আমার সংস্কৃতি, আমার দেশ, প্রিয় বাংলাদেশ” শ্লোগান নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটনে জাঁকজমকপূর্ণ  এই বাংলা উৎসব  আয়োজনের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। আগামী  ১৩ ও ১৪ মে দুই দিন ব্যাপী অনুষ্ঠানমালায় থাকছে নানান আয়োজন।

বাঙালি কমিউনিটির বিভিন্ন সংগঠন, স্থানীয় শিল্পী ও কলা-কুশলীদের সাথে আনুষ্ঠানিক মতবিনিময় সভার মধ্য দিয়ে মা-মাটি ও মাতৃভাষার প্রতি গভীর মমত্ববোধ ও দায়বদ্ধতার ভাবাবেগ থেকে এই উৎসবের আয়োজনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। তারই ফলশ্রুতিতে বাংলাদেশ ও বিশ্ববাসীকে জানানোর লক্ষ্যে জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় কণ্ঠশিল্পী ও বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক পরিষদের সভাপতি মোঃ আব্দুল জব্বার, অর্থমন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব ও বিশিষ্ট অভিনেতা পীরজাদা শহীদুল হারুন, বাংলা উৎসব-এর সাংস্কৃতিক ও শিল্পী ব্যবস্থাপনা এডহক কমিটির চেয়ারম্যান ও স্বদেশ শৈলীর সম্পাদক মৃদুল রহমান, উৎসবের বাংলাদেশ প্রতিনিধি ও সমন্বয়কারী বিশিষ্ট লোক গবেষক সাইমন জাকারিয়া, অভিনেতা সত্তার, অভিনেত্রী মোমেনা চোধুরী ও  সাংস্কৃতিক সংগঠক ও সাংবাদিক আলী আশরাফ আখন্দ।

আরটিভির সাথে সম্প্রচার চুক্তি স্বাক্ষরিত হওয়ার পর আরটিভি ও বাংলা উৎসবের কর্মকর্তাবৃন্দ

আরটিভির সাথে সম্প্রচার চুক্তি স্বাক্ষরিত হওয়ার পর আরটিভি ও বাংলা উৎসবের কর্মকর্তাবৃন্দ

অনুষ্ঠানে সেমিনার, বইমেলা, প্রামাণ্য চিত্র প্রদর্শনী, মৃৎ চারু ও কারুশিল্প প্রদর্শনী, বাংলার ঐতিহ্যবাহী খেলাধুলা, চর্যাগীতি, স্বদেশী বাদ্যযন্ত্র প্রদর্শনী ও পরিবেশনা, ময়মনসিংহ গীতিকা, জারিগান, পালাগান, রবীন্দ্র ও নজরুল জলসা, পঞ্চকবির গানের আসর, নাটক, গীতিনৃত্য এবং তৃণমূল পর্যায়ের লোকজ সংস্কৃতি নিয়ে বর্ণিল সাংস্কৃতিক পরিবেশনা তুলে ধরা হবে।  অনুষ্ঠানটি নর্থ আমেরিকার রেডিয়েন্ট টেলিভিশন সরাসরি সম্প্রচার করতে সম্মত হয়েছে। প্রবাসী ও স্বদেশী স্বনামধন্য শিল্পী ও কলা-কুশলীদের সর্বাত্মক অংশগ্রহণে পরিকল্পিত অনুষ্ঠানমালা পরিবেশনের স্বার্থে ১২০০ দর্শক ধারণক্ষমতা সম্পন্ন অত্যাধুনিক মিলনায়তন প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মেরিল্যান্ড ও ভার্জিনিয়ার অংশবিশেষের মাঝখানে রাজধানী শহর ওয়াশিংটন ডিসি। বৃহত্তর ওয়াশিংটন বলে ভৌগলিক পরিচিতিতে যা মেট্টো ওয়াশিংটন এলাকা নামেও পরিচিত। যে মেট্টো ওয়াশিংটন এলাকা মার্কিন অফিস-আদালত ও কর্মব্যাপকতার কারণে আমাদের প্রবাসী বাঙালিদের যথেষ্ট আবাসন ব্যবস্থা লক্ষনীয়। প্রায় চল্লিশ হাজার বাঙালি পরিবার এই  মেট্টো ওয়াশিংটন এলাকায় বসবাস করে বিধায়  ওয়াশিংটনস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসসহ অন্যান্য সংগঠন তৎপরতা অনেক বেশি। বাংলা ভাষা-সাহিত্য, সংস্কৃতি ও কৃষ্টির প্রতি এই অঞ্চলের বাঙালিদের রয়েছে যথেষ্ট আত্মিক প্রীতি যার বিভিন্ন আনুষ্ঠানিক উৎসব আয়োজন ইতোমধ্যে পত্র-পত্রিকা ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচারিত হয়েছে।

‘বাংলা উৎসব-২০১৭’ তে বিশেষভাবে সম্পৃক্ত থেকে উপদেষ্টা হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন বাংলা একাডেমির সভাপতি ইমেরিটাস অধ্যাপক আনিসুজ্জামান এবং মহাপরিচালক ড. শামসুজ্জামান খান। উৎসব সমন্বয়কারী হিসেবে বাংলাদেশে আনুষ্ঠানিকভাবে আয়োজক কমিটির সাথে সম্পৃক্ত রয়েছেন বাংলা একাডেমির সহপরিচালক ও গবেষক সাইমন জাকারিয়া। বাংলাদেশ শিশু একাডেমির চেয়ারম্যান কথাসাহিত্যিক সেলিনা হোসেন, বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের সভাপতি আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ, বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক পরিষদের সভাপতি জাতীয় কণ্ঠশিল্পী মোঃ আব্দুল জব্বার, চিত্র নায়ক ফারুক, গীতিকার হাসান মতিউর রহমান, অভিনেত্রী রোজিনা ও অরুনা বিশ্বাস,পীরজাদা শহীদুল হারুন, বাংলাদেশ বাউল সমিতির সভাপতি মোঃ আব্দুল লতিফ সরকার, বাউল শিল্পী শফি মন্ডলসহ দেশের অনেক সাংস্কৃতিক সংগঠন ও ব্যক্তিত্ব এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন।

 রেডিয়েন্ট আইপিটিভির সাথে সম্প্রচার চুক্তি স্বাক্ষরিত হওয়ার পর আইপিটিভির ও বাংলা উৎসবের কর্মকর্তাবৃন্দ

রেডিয়েন্ট আইপিটিভির সাথে সম্প্রচার চুক্তি স্বাক্ষরিত হওয়ার পর আইপিটিভির ও বাংলা উৎসবের কর্মকর্তাবৃন্দ

ওয়াশিংটনের শ্রেষ্ঠ বাংলা স্কুল হিসেবে খ্যাত ‘বর্ণমালা শিক্ষাঙ্গন’ ‘বাংলা উৎসব-২০১৭’ এর আয়োজক প্রতিষ্ঠান হিসেবে কাজ করছে। প্রতিষ্ঠানটি বাঙালি কমিউনিটির নতুন প্রজন্মের ছেলে-মেয়েদেরকে বাংলা ভাষা সংস্কৃতির সাথে প্রত্যক্ষভাবে সম্পৃক্ত করতে কাজ করে যাচ্ছে। সম্পূর্ন বিনা বেতনে প্রবাসীদের ছেলে-মেয়েরা বাংলা শিক্ষার সুযোগ পাচ্ছে। বিটিআরসি চেয়ারম্যান শাহজাহান মাহমুদের পরামর্শ ও উপদেশ নিয়ে গড়ে ওঠা ‘বর্ণমালা শিক্ষাঙ্গন’ ইতোমধ্যে বাংলাদেশ দূতাবাস, কমিউনিটির বিভিন্ন সাংস্কৃতিক কর্মতৎপরতায় বিশেষ ভূমিকা রেখে আসছে। ‘বর্ণমালা শিক্ষাঙ্গন’ এর আয়োজনে ‘বাংলা উৎসব-২০১৭’ এর এডহক কমিটিতে প্রচার ও যোগাযোগের দায়িত্বে রয়েছেন বিশ্বব্যাংকের আইটি নেটওয়ার্ক এক্সপার্ট এ্যন্থনী পিউস গমেজ,  সাংস্কৃতিক ও শিল্পী ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে ভার্জিনিয়াস্থ সুফিয়া ইনস্টিটিউট অব সাইন্স এন্ড টেকনোলজির প্রশাসনিক কর্মকর্তা ও সাহিত্য সাময়িকী স্বদেশ শৈলী’র সম্পাদক মৃদুল রহমান এবং ইভেন্ট ও কালচারাল সহযোগী হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রের লেবার ডিপার্টমেন্টের আইটি বিশেষজ্ঞ সেলিম আকতার, সহ আরো কয়েকজন।

উল্লেখ্য আয়োজক কমিটির প্রত্যেকেই সাহিত্য-সংস্কৃতিবোধ সম্পন্ন শিক্ষিত ও সচেতন ব্যক্তিত্ব।  ইতিমধ্যে দেশের বেশকয়েক জন খ্যাতিমান তারকা শিল্পী, বাউল শিল্পী, সাংবাদিক, সাংস্কৃতিক সংগঠক ও লোকশিল্পী এ দলে অন্তর্ভূক্ত হয়েছে।  বাংলা উৎসবের বাংলাদেশের মিডিয়ার দায়িত্বে রয়েছেন সাংস্কৃতিক সংগঠক ও সাংবাদিক আলী আশরাফ আখন্দ।

বাংলা উৎসব ২০১৭ এর উদযাপন বিষয়ক প্রায় সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। গতকাল আরটিভি ও রেডিয়েন্ট আইপিটিভি সাথে অনুষ্ঠান সম্প্রচার সংক্রান্ত একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। বাংলা উৎসব চলাকালে রেডিয়েন্ট আইপিটিভি ও আরটিভি সকল অনুষ্ঠান ও সংবাদ সম্প্রচার করবে। দেশের বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠান কো-স্পন্সর হিসেবে থাকার আশ্বাস দিয়েছেন। দেশের সকল দৈনিক ও সাপ্তাহিক পত্রিকায় এবং অনলাইন পত্রিকাগুলো নিয়মিত এ সংক্রান্ত সংবাদ প্রচার করে আসছে।

এএইচ

No Comments so far

Jump into a conversation

No Comments Yet!

You can be the one to start a conversation.

<