বিপদ এখনো কেটে যায়নি: চিকিৎসক

বিপদ এখনো কেটে যায়নি: চিকিৎসক মে ১২, ২০১৯ ০ comments
atm

ছবি- সংগৃহীত

রঙিন ডেস্ক: বাংলাদেশের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেতা, পরিচালক, কাহিনিকার, চিত্রনাট্যকার, সংলাপ লেখক ও গল্পকার এটিএম শামসুজ্জামান। অভিনয়ের জন্য পেয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। শিল্পকলায় অবদানের জন্য পেয়েছেন একুশে পদক।

দুই সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে রাজধানীর পুরান ঢাকায় গেন্ডারিয়ার আসগর আলী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন গুণী এই অভিনেতা। হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রের (আইসিইউ) ৩ নম্বর বিছানায় শুয়ে আছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত এই অবিনেতা। চিকিৎসকেরা তাকে নিয়ে এখনো আশাবাদী। তবে এটাও বলেছেন, ‘বিপদ এখনো কেটে যায়নি। যেকোনো সময়, যেকোনো কিছু ঘটতে পারে।’

এ বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক ক্রিটিক্যাল কেয়ার বিশেষজ্ঞ মো. মতিউল ইসলাম জানান, চিকিৎসা শুরুর কয়েক দিন পর তাকে লাইফ সাপোর্ট দেওয়া হয়। এরপর আবার স্বাভাবিক নিয়মে শ্বাস নিতে পারলে লাইফ সাপোর্ট খুলে দেওয়া হয়। অবস্থার অবনতি হলে চার দিন আগে তাকে আবার লাইফ সাপোর্ট দেওয়া হয়।

তিনি জানান, গতকাল শনিবার সকাল থেকেই তুলনামূলকভাবে ভালো আছেন এটিএম শামসুজ্জামান। তার লাইফ সাপোর্ট যন্ত্র খুলে নেওয়া হয়েছে। তিনি যথেষ্ট সাড়া দিচ্ছেন। সালাম দিলে হাসি দিয়ে জবাব দিচ্ছেন। তবে এখনো আমরা তাকে বিপদমুক্ত বলতে পারছি না। কেননা, তিনি মূলত বার্ধক্যজনিত সমস্যায় ভুগছেন। এই অবস্থায় সমস্যা একটি অঙ্গ থেকে অন্য অঙ্গে ছড়িয়ে পড়ে। কেবিনে দেওয়ার আগে পর্যন্ত আমরা কোনোভাবে বিপদমুক্ত বলতে পারছি না।

আরো পড়ুন: সম্পর্ক ভাঙার পর কষ্ট পেয়েছিলেন শাহিদ!

যেহেতু এখন তার স্বাভাবিক বোধ ফিরে এসেছে, তাই চিকিৎসকেরা পরিবারের সদস্যদের পরামর্শ দিয়েছেন কাছে কম যেতে। কেননা, পরিজনদের দেখলেই তিনি আবেগ আপ্লুত হয়ে পড়ছেন। চোখ দিয়ে ঝরঝর করে পানি পড়ে। এ পরিস্থিতিতে হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা থাকে। তাছাড়া যেকোনো সময় রোগী সংক্রমণ জটিলতায় পড়তে পারেন। এটিএম শামসুজ্জামানের ফুসফুস এখনো খুবই দুর্বল। তাই চিকিৎসকেরা কোনো ঝুঁকি নিতে চান না।

এদিকে গতকাল শনিবার রাতে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে বর্ষীয়ান এই অভিনেতার মৃত্যুর যে সংবাদ ছড়িয়ে পড়েছিল, তা সম্পূর্ণ মিথ্যা। এমন খবরে পরিবারের সদস্যরা বিরক্ত, হতাশ। এ নিয়ে ষষ্ঠবারের মতো তার মৃত্যু নিয়ে মিথ্যা খবর প্রচারিত হলো।

গত বছর জুন মাসে একটি বেসরকারি টেলিভিশনসহ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এটিএম শামসুজ্জামানের মৃত্যুর খবর প্রচারিত হয়। তখন তিনি নিজে ভিডিও বার্তায় এর প্রতিবাদ জানান। ক্ষোভের সঙ্গে বলেছেন, ‘আমি এখনো মরিনি। এর আগেও আমাকে আট-নয়বার যারা মেরেছে, তারা ইতর প্রকৃতির!’

এবার অবশ্য ভিডিও বার্তায় ক্ষোভ প্রকাশের মতো অবস্থায় নেই অভিনেতা। তবে পরিবারের সদস্যরা হতাশ এবং ক্ষোভ প্রকাশ করলেন।

এসএল/এএইচ

No Comments so far

Jump into a conversation

No Comments Yet!

You can be the one to start a conversation.

<