দুই বছরে চীনে ২০ সিআইএ এজেন্টকে হত্যা

মে ২১, ২০১৭ ০ comments

রঙিন ডেস্ক : চীনের অভ্যান্তরে যুক্তরাষ্ট্রের গোযেন্দা সংস্থা সিআইএ’র তৎপরতা পদ্ধতিগত ভাবে শেষ করে দেওয়া হয়েছে।২০১০ থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত দুই বছর সময়ের ব্যবধানে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএ’র ১৮ থেকে ২০ এজেন্টকে হত্যা অথবা বন্দি করেছে চীন সরকার।

আর এতেই চীনের ভিতর সিআইএ’র তৎপরতা স্থবির হয়ে পড়ে। বর্তমান ও সাবেক ১০ মার্কিন কর্মকর্তার বরাত দিয়ে নিউ ইয়র্ক টাইমস শনিবার এমন সংবাদ জানিয়েছে।

ওই কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, সিআইএ’র হয়ে কাজ করা এসব ব্যক্তিকে অথবা বন্দি কর চীনে গোয়েন্দা সংস্থাটির তৎপরতাকে পদ্ধতিগতভাবে শেষ করে দেওয়া হয়েছে। সিআইএ’র ভেতরের কেউ বিশ্বাসঘাতকতা করে চীনকে এ তথ্য দিয়েছে নাকি গোয়েন্দা সংস্থাটির যোগাযোগব্যবস্থা হ্যাক করে চীন এসব এজেন্ট সম্পর্কে তথ্য পেয়েছে তা নিয়ে এখনো তদন্ত কর্মকর্তারা দ্বিধা বিভক্ত।

এক মার্কিন কর্মকর্তা জানিয়েছেন, হত্যা বা গুমের শিকার এসব এজেন্টদের মধ্যে একজনকে তাদের সহকর্মীর সামনেই গুলি করে হত্যা করা হয়। চীনে অন্য দেশের হয়ে গোয়েন্দাগিরি করলে কী পরিণাম হয় তা দেখানোর জন্য এ কাজ করা হয়েছিল।

চার প্রাক্তন কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ২০১০ সালে চীনের সরকারের উচ্চ পর্যায় সম্পর্কে গোপন তথ্য পেতে শুরু করেছিল সিআইএ। এমনকি সরকারের ভেতরের দুর্নীতির অনেক তথ্যই তাদের কাছে চলে আসছিল। ওই সময়ই সিআইএয়ের এজেন্টদের হত্যা বা গুমের ঘটনা ঘটতে শুরু করে।

এজেন্ট নিহত বা গুমের এই ঘটনাকে অনেক বড় ক্ষতি হিসেবে বিবেচনা করছেন মার্কিন কর্মকর্তারা। সাবেক সোভিয়েত আমলে অ্যাল্ডরিচ এমিস ও রবার্ট হানসিনের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে কেজিবিও মস্কোতে থাকা সিআইএয়ের একাধিক এজেন্টকে হত্যা করেছিল। চীনের ঘটনাকে তার সঙ্গেই তুলনা করছেন কর্মকর্তারা।

নিউ ইয়র্ক টাইমসের পক্ষ থেকে এ ব্যাপারে সিআইয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে কোনো উত্তর পাওয়া যায়নি।

এএইচ

No Comments so far

Jump into a conversation

No Comments Yet!

You can be the one to start a conversation.

<