জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী করা হচ্ছে

ডিসেম্বর ৬, ২০১৭ ০ comments

রঙিন ডেস্ক : হোয়াইট হাউজের এক উর্ধ্বতন কর্মকর্তা জানিয়েছেন, খুব শিগগিরই জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী ঘোষণা করবেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এর আগে, ইসরাইলে অবস্থিত মার্কিন দূতাবাস তেল আবিব থেকে জেরুজালেমে সরিয়ে নেবে বলে ফিলিস্তিনি প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসকে জানিয়েছেন ট্রাম্প।

গতকাল মঙ্গলবার এক ফোনালাপে আব্বাসকে একথা বলেন তিনি। তবে এ ব্যাপারে কোনো নির্দিষ্ট সময়ের কথা উল্লেখ করেননি ট্রাম্প। মার্কিন ওই কর্মকর্তাও জানান, এখনই তেল আবিব থেকে দূতাবাস সরানো হবে না। বুধবার ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা যায়। প্রতিবেদনে বলা হয়, বুধবার এই বিষয়ে ট্রাম্পের বক্তব্য দেয়ার কথা রয়েছে। জেরুজালেমকে রাজধানী দাবি করে আসছে ইসরাইল আর পূর্ব জেরুজালেমকে ভবিষ্যৎ ফিলিস্তিনি রাষ্ট্রের রাজধানী হিসেবে দেখতে চায় দেশটির জনগণ।

ইহুদি-খ্রিস্টান ও মুসলিম, তিন সম্প্রদায়ের মানুষের জন্য পবিত্র ধর্মীয় স্থান জেরুজালেম। তেল আবিব থেকে মার্কিন দূতাবাস জেরুজালেমে সরিয়ে নেয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণে ৪ ডিসেম্বর সময়সীমা পার হয়ে গেছে। সোমবার দূতাবাস সরিয়ে নেয়ার ঘোষণা না দেয়ায় দেশটির আইন অনুযায়ী আরো ছয় মাসের মধ্যে দূতাবাস সরছে না। দূতাবাস সরিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্ত আপাতত স্থগিত করলেও আশঙ্কা রয়েছে জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী ঘোষণা করতে পারেন ট্রাম্প।

তবে ফিলিস্তিনি প্রেসিডেন্টের মুখপাত্র নাবিল আবু দাইনাহ এক বিবৃতিতে বলেন, প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস ট্রাম্পের একটি ফোন পেয়েছেন। ফোনে মার্কিন দূতাবাস তেল আবিব থেকে জেরুজালেমে সরিয়ে নেয়ার ইচ্ছের কথা জানিয়েছেন ট্রাম্প। তবে এ ধরনের পদক্ষেপ ও সিদ্ধান্তের ফলে মধ্যপ্রাচ্য ও বিশ্বের শান্তি, নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতা হুমকির মুখে পড়তে পারে বলে প্রেসিডেন্ট আব্বাস ট্রাম্পকে সতর্ক করেছেন।

সূত্র : বিবিসি ও সিএনএন।

আরপি/ এএইচ

No Comments so far

Jump into a conversation

No Comments Yet!

You can be the one to start a conversation.

<