কেন ভেঙেছিলো শাহিদ-প্রিয়াঙ্কার সম্পর্ক?

কেন ভেঙেছিলো শাহিদ-প্রিয়াঙ্কার সম্পর্ক? মে ৩০, ২০২০ ০ comments
pri

ছবি- সংগৃহীত

রঙিন ডেস্ক: ২০০৯ সালে মুক্তি পাওয়া ছবি ‘কামিনে’-র সেট থেকেই তাদের সম্পর্কের সূত্রপাত। এই ফিল্মে একে অপরের বিপরীতে অভিনয় করেছিলেন তারা। এরপর ‘তেরি মেরি কাহানি’-তেও একসঙ্গে দেখা যায় দু’জনকে। এটাই ছিল তাদের একসঙ্গে করা শেষ ফিল্ম। এই ফিল্মের পর তাদের ব্রেকআপও হয়।

শাহিদের জীবনের সঙ্গে অনেক মহিলার নাম জড়িয়েছে। সোনাক্ষী সিন্হা, এষা দেওল, প্রিয়াঙ্কা চোপড়া, বিদ্যা বালন, কারিনা কাপুর…। তালিকাটা বেশ বড়। তবে এদের মধ্যে যে দুটো সম্পর্ক নিয়ে শাহিদ ভীষণভাবে সিরিয়াস ছিলেন তা হল প্রিয়াঙ্কা চোপড়া এবং কারিনা কাপুর। প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার সঙ্গে তার সম্পর্ক যদিও খুব কম সময়ের জন্য ছিল। কিন্তু তাদের এই সম্পর্ক অনেক বেশি চর্চায় এসেছিল।

সম্পর্কটা নিয়ে সিরিয়াস হলেও দু’জনের ভাবনাচিন্তার খুব একটা মিলছিল না। শাহিদ ছিলেন ভীষণ দায়িত্বশীল এবং প্রাইভেট পার্সন। অন্যদিকে প্রিয়াঙ্কা ছিলেন অত্যন্ত ক্যাসুয়াল এবং খোলামেলা।

২০১০ সালে প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার বাড়িতে আয়কর অফিসারদের তল্লাশি চলে। প্রিয়াঙ্কা সে সময় শাহিদকেই ফোন করেছিলেন। শাহিদও খুব দ্রুত তার বাড়িতে পৌঁছে গিয়েছিলেন। সেই থেকেই তাদের সম্পর্কটা সকলের কাছে উন্মুক্ত হয়ে যায়। পরে শাহিদ এবং প্রিয়াঙ্কা দু’জনে এক সাক্ষাৎকারে সম্পর্কের কথা স্বীকারও করেছিলেন। ২০১২ সালে মুক্তি পাওয়া ‘তেরি মেরি কাহানি’ ফিল্মের শুটিং চলছিল। সে সময় থেকেই তাদের সম্পর্কের মধ্যে চিড় ধরতে শুরু করে। সেটা ছিল ২০১১ সাল।

আরো পড়ুন: বিতর্কিত বিজ্ঞাপনের জন্য ক্ষমা চাইলেন হেমা

বলিউডে গুঞ্জন, এ সময় নাকি প্রিয়াঙ্কা বলিউডের অন্য এক জনপ্রিয়া অভিনেতার ঘনিষ্ঠ হয়ে পড়েছিলেন। প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে ওই অভিনেতার ঘনিষ্ঠতা শাহিদ কপূর মেনে নিতে পারছিলেন না। শোনা যায়, সে সময় নাকি প্রিয়াঙ্কাকে ওই অভিনেতার সঙ্গে বেশি মেলামেশা করতেও মানা করেছিলেন শাহিদ। কিন্তু প্রিয়াঙ্কা সে সবে কান দেননি। দু’জনের মধ্যে এই নিয়ে কথা কাটাকাটি হতে শুরু করে।

তার উপর প্রিয়াঙ্কার কেরিয়ারেও বড়সড় শিফট হতে শুরু করে। শাহিদ তখও স্ট্রাগল করছিলেন, আর প্রিয়াঙ্কা দ্রুত সিঁড়ি বেড়ে উপরে উঠতে শুরু করে দেন। দেশি গার্লের এই জনপ্রিয়াতাও শাহিদ মেনে নিতে পারছিলেন না বলে মনে করেন অনেকে।

এ সবের মাঝে দু’জনের মধ্যে অনেক দূরত্বও তৈরি হয়ে গিয়েছিল। তবে প্রিয়াঙ্কা এবং শাহিদ দু’জনেই সম্পর্কটাকে একটা শেষ সুযোগ দিতে চেয়েছিলেন। ২০১১ সালের নভেম্বর নাগাদ তারা একসঙ্গে ছুটি কাটাতে গোয়া যান। কিন্তু সম্পর্কের সেই চিড় আর পুরোপুরি জোড়া লাগেনি। দু’জনেই বুঝতে পেরেছিলেন, এই সম্পর্কটাকে আর এগিয়ে নিয়ে যাওয়া সম্ভব নয়।

বর্তমানে অবশ্য দু’জনেই নিজেদের পরিবার নিয়ে খুশি। শাহিদের স্ত্রী মীরা এবং প্রিয়াঙ্কার স্বামী নিক জোনস। একে অপরের সঙ্গে সুখে সংসার করছেন। সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা

এসএল/এএইচ

No Comments so far

Jump into a conversation

No Comments Yet!

You can be the one to start a conversation.

<